সাদা পোলাও

সাদা পোলাও

পোলাও রান্নার রকমের অভাব নেই। একেক রাধুনী একেক নিয়মে রান্না করেন। কেউ কেউ দুধ দিয়ে রান্না করেন। আবার কেউ কেউ পানি দিয়ে রান্না করেন। অনেকে আবার দুটোই মিশান প্রয়োজনমত। কোন কোন রাধুনী চাল ভেজে রান্না করেন। কারো আবার চাল ভাজাটাকে ঝামেলা মনে হয়। তবে আমার মতে চাল যদি ভেজে নেওয়া যায় তবে পোলাও পারফেক্ট হবে। আর আমার নিজের জন্য আমি সবসময় দুধ দিয়েই পোলাও রান্না করি। চলুন আজ দুধ দিয়ে সাদা পোলাও রান্নার নিয়ম জেনে নেই।

সাদা পোলাও রান্নার উপকরণ

  • পোলাও এর চাল ১ কাপ
  • দারচিনি ২ টুকরা
  • এলাচ ৪টি
  • গোলমরিচ ৬ থেকে ৭টি থেতো করা
  • লবঙ্গ ৪টি
  • জিরা বাটা ১ চা চামচ
  • রসুন বাটা ১ চা চামচ
  • আদা বাটা ২ চা চামচ
  • কাঁচামরিচ ৭ থেকে ৮টি
  • লবণ স্বাদমত
  • চিনি ১/২ চা চামচ
  • মিস্টি দই ১/২ কাপ
  • কেওড়া জল ১/২ চা চামচ
  • গোলাপ জল ১/২ চা চামচ
  • গুড়া দুধ ২ টেবিল চামচ
  • দুধ ২ কাপ
  • পেঁয়াজ বেরেস্তা ৪ টেবিল চামচ
  • ঘি ২ টেবিল চামচ

সাদা পোলাও রান্নার প্রণালী

প্রথমে চাল ধুয়ে পানি ঝরিয়ে রাখতে হবে।

একটা হাড়িতে পানি এবং অর্ধেক পরিমাণ গরম মশলা (এলাচ, দারচিনি, লবঙ্গ, গোলমরিচ) ফুটতে দিতে হবে।

ঘি গরম করে বাকি গরম মশলা ফোড়ন দিতে হবে। তেল থেকে সুন্দর ফোড়নের গন্ধ বের হবে। তখন চাল, রসুন বাটা, আদা বাটা, জিরা বাটা, লবণ দিয়ে ভাজতে হবে।

৪ থেকে ৫ মিনিট চাল নেড়ে নেড়ে ভাজতে হবে। এরপর চাল হাতে নিয়ে নখ দিয়ে চাপ দিয়ে দেখতে হবে। দেখবেন চাপ দিলে চাল ভেঙ্গে যাচ্ছে। এর মানে চাল ভাজা হয়ে গেছে। এ অবস্থায় গরম দুধ, চিনি ও বেরেস্তা দিয়ে দিতে হবে। এ অবস্থায় চুলার আঁচ একদম কমিয়ে ঢেকে দিতে হবে।

একটা পাত্রে মিস্টি দই নিতে হবে। এর সাথে গুড়া দুধ, গোলাপ জল, কেওরা জল মিশিয়ে খুব ভাল করে গুলে নিতে হবে।

পানি যখন একদম শুকিয়ে যাবে তখন এই মিশ্রণ ও কাঁচামরিচ দিয়ে দিতে হবে। ভাল করে মিশিয়ে দমে রাখতে হবে। খুব বেশি সময় দমে রাখার দরকার নেই। মোটামুটি ২০ থেকে ২৫ মিনিট দমে রাখলেই হবে।

এরপর সার্ভিং ডিশে পোলাও সাজিয়ে উপর থেকে বেরেস্তা ছড়িয়ে পরিবেশন করুন গরম গরম সাদা পোলাও।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *